২ বিচারকের পদত্যাগ দাবি: ৭ আইনজীবীর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন


নিজস্ব প্রতিবেদক

আরটিএনএন

ঢাকা: আপিল বিভাগের দুজন বিচারপতি পদত্যাগের ৪৮ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেয়া এবং তাদের পদত্যাগের দাবিতে মিছিল সমাবেশ করায় বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের মহাসচিব ব্যারিস্টার কায়সার কামালসহ বিএনপিপন্থী সাতজন আইনজীবীর বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আদালত অবমাননার আবেদন করা হয়েছে।

বুধবার (৩০ আগস্ট) প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় আদালত অবমাননার আবেদনের ওপর শুনানির জন্য ১ নম্বর ক্রমিকে রাখা হয়েছে।

কায়সার কামাল ছাড়া অন্য যে ছয়জন আইনজীবীর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন করা হয়েছে তারা হলেন- সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সভাপতি এ জে মোহাম্মদ আলী, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট ফাহিমা নাসরিন মুন্নি, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম সুপ্রিম কোর্ট ইউনিটের সভাপতি আব্দুল জব্বার ভূঁইয়া, সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস কাজল, সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সহ-সম্পাদক মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান খান ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সুপ্রিম কোর্ট ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক গাজী কামরুল ইসলাম সজল।

এর আগে মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) সকালে আপিল বিভাগের দুই বিচারপতির পদত্যাগের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন ও মিছিল সমাবেশ করায় বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন করা হয়। আইনজীবী নাজমুল হুদার পক্ষে অ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা যুথি এ আবেদন দায়ের করেন।

আবেদনে বলা হয়েছে, ‘জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের মহাসচিব ব্যারিস্টার কায়সার কামাল সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার সাথে তৎকালীন আপিল বিভাগের বিচারপতিগণ একত্রে বিচারকাজ পরিচালনার অপারগতা প্রকাশ করেছিলেন। যার পরিপ্রেক্ষিতে বর্তমান বিনা ভোটের সরকারের রোষানলে পড়ে বিচারপতি সিনহা দেশ ত্যাগ ও পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। তিনি আরো বলেন, আপিল বিভাগের দুইজন বিচারপতিকে বিচার কাজ থেকে বিরত না রাখলে ৪৮ ঘণ্টা পরে তাদের পদত্যাগের দাবিতে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে মর্মে হুশিয়ারি প্রদান করা হয়।’

উল্লেখ্য, গত ২৭ আগস্ট শোক দিবসের অনুষ্ঠানে নিজেদের ‘শপথবদ্ধ রাজনীতিবিদ’ উল্লেখ করে বক্তব্য দেয়ায় আপিল বিভাগের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. আবু জাফর সিদ্দিকীর পদত্যাগের ৪৮ ঘন্টার আলটিমেটাম দিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতিতে এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের মহাসচিব ব্যারিস্টার কায়সার কামাল এ দাবি জানান।